প্যাসিভ ইনকাম কিভাবে করবেন

এই লেখাটি শুধু মাত্র নতুনদের জন্যে যারা প্যাসিভ আয় সম্পর্কে শুনেছেন তবে পুরোপুরি বুঝতে পারেনটি । কিছুই করলেন না আর আলাদিনের জীন এসে আপনাকে টাকা দিয়ে যাবে ব্যপারটি কিন্তু মোটেও এমন নয়।

 

কিছু পেতে হলে আপনাকে অবশ্যই কিছু না কিছু করে অন্যের জন্যে ভ্যালু তৈরি করতে হবে যার ধারা আপনার প্যাসিভ ভাবে আয় শুরু হবে ।

 

আমরা প্যাসিভ আয় ব্যপারটাকে ৩ ভাবে ভাগ করতে পারি –

 

ধরুন আপনার টাকা আছে তা কোন যায়গায় বিনিয়োগ করে

অথবা আপনার এমন কিছু আছে যার ধারা আপনি আয় করতে পারেন  

অথবা আপনার সময় আছে যা বিভিন্ন কাজ কর্মের মাধ্যমে আপনি প্যাসিভ আয়ের উৎস তৈরিতে ব্যায় করতে পারেন ।

 

এই প্যাসিভ আয়ের ব্যাপারটা কিন্তু মোটেও নতুন কিছু না । আমাদের আগের জেনারেশনরা কিন্তু হর হামেসাই এগুলো করে আসছেন । হয়তোবা কিছুটা দেখার ভঙ্গির পরিবর্তন এসেছে। নিচে আমি বুজিয়ে বলার চেস্টা করছি ।

 

ধরুন আপনার টাকা আছে –

 

তাহলে আপনি দুটো কাজ করতে পারেন

১ রিয়েল ইস্টেট এ ব্যবসায় বিনিয়োগ

২ টাকা ধার দিয়ে

 

দেখলেনতো এগুলো নুতুন কিছুই না ।

 

তবে এখন তথ্যপ্রযুক্তির যুগে এর রুপের কিছুটা পরিবর্তন এসেছে ।

 

আর যেমন ধরুন আপনার গাড়ি বা মোটর বাইক আছে এগুলো কাজে লাগিয়েও আয় করা সম্ভব ।

উবার , চলো এখন বাংলাদেশের নতুন ট্রেন্ড অথবা আয় করার মাধ্যম ।

 

আর এখন ধরুন আপনার হাতে সময় আছে যা আপনি কাজে লাগাতে চান প্যাসিভ আয়ে –

 

আপনার জ্ঞান , অভিজ্ঞতা আর কার্যকারিতা দিয়ে তৈরি করুন আপনার একটি ব্লগ । যা থেকে বিভিন্ন ভাবে আয় করতে পারবেন ।

 

অথবা লিখে ফেলুন ইবুক যা বিক্রি করে আয় করতে পারেন ।

 

আর আপনার যদি ছবি তোলা শখ হয়ে থাকে তাহলেতো কথাই নাই । অনেক ওয়েব পোর্টাল আছে যেখানে স্টক ছবি বিক্রি করা যায় ।

 

অথবা অনলাইন কোর্স তৈরি করে বিক্রি করেও আয় করতে পারেন।  

 

ভিডিও মেকিং করে আয়ের উৎস ইউটিউব পার্টনার প্রোগ্রামতো এখন আর নতুন কিছু না ।

 

এমাজন এফিলিয়েট মার্কেটিং করেও প্যাসিভ আয় সম্ভব ।

 

অথবা আপ্নার কাছে ভাল পণ্যের  খোজ  আছে যা বাহিরের দেশে চাহিদা আছে বলে আপনি মনে করেন দেরি না করে মার্কেট রিসার্চ করে এমাজন পার্টনার প্রোগ্রামের মাধ্যমে তা বিক্রি করতে পারেন।

 

অথবা শপিফাই এর মাধ্যমে ড্রপ শিপিং করেও কিন্তু টাকা কামানো সম্ভব ।

 

আজকের লেখাটি ছিল আসলে শুধু রোড ম্যাপ তৈরির সাহায্যের জন্যে । আশা করি পরবর্তীতে ধীরে  ধীরে প্রতিটা  ব্যাপারে লেখা আসবে আমার এই ব্লগে।

 

সেই পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন আর । ব্লগটি বুকমার্ক করে রাখতে ভুলবেন না ।


Was This Post Helpful:

0 votes, 0 avg. rating

Share:

asifibhuiya

Leave a Comment