নিজের পছন্দের সিদ্ধান্ত ব্যবসায়িকভাবে সফলতা বয়ে নাও আনতে পারে। প্রচুর বিক্রি হবে বলে মনে হওয়া পণ্য যেমন আশানরুপ বিক্রি হতে নাও পারে, তেমনি উল্টোটা হওয়াও অস্বাভাবিক নয়। বাজার পর্যবেক্ষণ করে ক্রেতার চাহিদামত পণ্য বাজারজাত করা ভাল। স্বল্প-বিক্রিত পণ্য উঠিয়ে নিয়ে লাভজনক পণ্য বাজারজাত করলে সময় ও অর্থ দুইই বাঁচানো সম্ভব।

আশাতীত বিক্রয় সাফল্য পেলে সেই পণ্যের প্রতি মনোযোগী হয়ে জোরদার প্রচারণা চালানো উচিৎ। পণ্য যদি লাভের মুখ না দেখে তবে সেটিকে অন্ধভাবে আঁকড়ে ধরে থাকার চাইতে ত্যাগ করাই শ্রেয়। অনলাইন ব্যবসার ক্ষেত্রে প্রতিষ্ঠিত কোম্পানিগুলোর নীতি মেনে সর্বোচ্চ লাভজনক পণ্যকে অগ্রাধিকার দেয়াই বুদ্ধিমানের কাজ।

সুন্দর কিছু বাক্যসম্বলিত কাগজের সাধারণ ব্যবসাও লাভজনক হতে পারে। সেই কাগজটির ব্যবহারিক প্রয়োগ না থাকলেও অন্তত দেয়ালের শোভাবর্ধনেও সেটি অতুলনীয়। এভাবে অল্প সময়ে কাগজটির অনেক কপি বিক্রি করা সম্ভব। এতে বুঝা যায়, সাধারণ কিন্তু কার্যকর ব্যবসায়িক নীতি গ্রহণ করাই সর্বোত্তম।
খুব সাধারণ চিন্তাও কার্যকর হতে পারে, যেমন অনলাইন ব্যবসার ক্ষেত্রে ই-মেইল মার্কেটিং এর দিকে আগ্রহী হওয়া ফলপ্রসূ। প্রচুর গ্রাহক তৈরি করে তাদের নতুন পণ্য বা সেবা সম্পর্কে ব্যক্তিগতভাবে ই-মেইলের মাধ্যমে অবহিত করলে তারা বিক্রেতার মনের কথা সহজেই বুঝতে পারে।

পণ্য বা সেবা জীবনকে কঠিনতর না করে সবসময়ই সহজতর ও আরামদায়ক করে তোলে। তাই বিপণনের ক্ষেত্রে সহজ সরল ভাষায় গ্রাহকের কাছে পণ্যের কথা বলতে হবে যাতে তারা ভ্রান্ত ধারণায় পণ্য পরিত্যাগ করে না করে।

সফল মানুষদের ভাষ্যমতে, সহজ ও সাধারণ কিন্তু সাবলীল ও অর্থবহ ভাষায় পণ্যের প্রচারণাই দারুণভাবে ব্যবসায় সাফল্য এনে দিতে পারে ।


Was This Post Helpful:

0 votes, 0 avg. rating

Share:

asifibhuiya

Leave a Comment